রাজশাহী প্রতিনিধি :- সম্পদের হিসাব না দেওয়ার মামলায় দুই বছরের সাজাপ্রাপ্ত আসামি রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের বরখাস্তকৃত উচ্চামান সহকারি মোস্তাক আহম্মেদেকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

রাজশাহী দুদকের আইনজীবী শহিদুল হক খোকন জানান, অবৈধ সম্পদের হিসাব না দেওয়ায় ২০১৭ সালে মোস্তাকের বিরুদ্ধে দুদক আইনের ২৬ (২) ধারায় একটি মামলা হয়। এই মামলায় ২০১৯ সালের ৩০ নভেম্বর মোস্তাক আহম্মেদের দুই বছরের সাজা হয়। এরপর থেকে মোস্তাক পলাতক ছিলেন।

এদিকে আরডিএর আটটি বাণিজ্যিক প্লট কেলেংকারির মামলায় চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে আদালতে চার্জশিট দাখিল করে দুদক যার আসামি মোস্তাক আহম্মেদও। রোববার রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ ও স্পেশাল জজ আদালতে জামিন নিতে হাজির হয়েছিলেন তিনি।

রাজশাহী মহানগর দায়রা জজ ও সিনিয়র স্পেশাল জজ মো: ইলিয়াশ হোসেন জামিন নামঞ্জুর করে মোস্তাক আহম্মেদকে পাঠানোর নির্দেশ দেন। উল্লেখ্য দুর্নীতির অভিযোগে ২০১৫ সালে মোস্তাক আহম্মেদকে রাজশাহী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ চাকরি থেকে বরখাস্ত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *